মোবাইল অ্যাপ পেতে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনের প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করুন | নিজের এলাকার খবর জানাতে হোয়াটসঅ্যাপ করুন 9232119011
logo
Breaking News
সাইকেল আগরবাতি বাজারে আনল পুষ্করিণী | প্রর্দশিত হল "অথ বৃষ মঙ্গল কথা" | আধার সেন্টারের লাইনে মহিলা-পুরুষের একই লাইন, সম্মানহানির অভিযোগ গ্রাহকদের | সরকারি সার ও কীটনাশক কৃষিজীবিদের না দিয়ে মাটিতে পুঁতে ফেলার অভিযোগে আন্দোলনে বামেরা | চাকরিক্ষেত্রে দুর্নীতি, ভোট পরবর্তী হিংসার বিরুদ্ধে বিজেপির অবস্থান-বিক্ষোভ | রেল সংস্কারের কাজের জন্য বিপর্যস্ত পরিষেবা, পরিবর্তন রুট, বাতিল ট্রেন | রাজ্য প্রতিশ্রুতি দিলেও বাঁকুড়া-বর্ধমান সেতু না হওয়ার অভিযোগ অগ্নিমিত্রার | নড়াইলে উদ্ধার ২১৫ পিস ইয়াবা, গ্রেফতার এক অভিযুক্ত | জলে ডুবে মৃত্যু হলো এক সেনা কর্মীর | লুমিনিস নিয়ে এল লি-অন ব্যাটারি |

লকডাউন অমান্য, গৌড় মালদা স্টেশনের রেক পয়েন্টে লরি বোঝাই করে সিমেন্ট সরবরাহ

2021-05-26 19:20:05
জেলা সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ স্লাইডার সাম্প্রতিক পোস্ট
লকডাউন অমান্য, গৌড় মালদা স্টেশনের রেক পয়েন্টে লরি বোঝাই করে সিমেন্ট সরবরাহ

মালদা,:-করোনা পরিস্থিতির মধ্যে লকডাউন অমান্য করে গৌড় মালদা স্টেশনের রেক পয়েন্ট থেকে দেদার ভাবে লরি বোঝাই করে সিমেন্ট সরবরাহ করার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ব্যবসায়ী সংগঠনের কয়েকজন বড় মাথা জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ। পুরো বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করেছেন তৃণমূলের ইংরেজবাজারের টাউন সভাপতি তথা প্রাক্তন চেয়ারম্যান নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি। লকডাউন পরিস্থিতিতে ওই রেক পয়েন্ট থেকে শুধুমাত্র কেন সিমেন্ট বোঝাই লরি চলাচল করছে সে ব্যাপারেও প্রশাসনকে জানিয়েছেন ইংরেজবাজার পুরসভার তৃণমূলের প্রাক্তন চেয়ারম্যান নরেন্দ্রনাথবাবু। যদিও এ প্রসঙ্গে প্রশাসন পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

মালদা টাউন স্টেশন সংলগ্ন রেক পয়েন্ট থেকেই মূলত বিভিন্ন ধরনের পণ্য সামগ্রী লরি বোঝাই করে জেলা তথা জেলার বাইরের বিভিন্ন প্রান্তে যাতায়াত করে থাকে। কিন্তু লকডাউন পরিস্থিতিতে আপাতত ওই এলাকায় রেক পয়েন্ট বন্ধ রাখা হয়েছে। সেই সুযোগেই কোভিড বিধি লংঘন করে ইংরেজবাজার থানার সুস্থানি মোড় সংলগ্ন গৌড় মালদা স্টেশনের রেক পয়েন্টে মালগাড়ি থেকেই শুধুমাত্র সিমেন্ট লোডিং করা হচ্ছে বিভিন্ন লরিগুলিতে বলে অভিযোগ। এরপরে সেগুলি শহরের বিভিন্ন গোডাউনে চলে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে ব্যবসায়ী মহলের কয়েকজন বড় মাথা জড়িত রয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এমনকি গত মঙ্গলবার পুরাতন মালদার মঙ্গলবাড়ী এলাকায় সিমেন্ট বোঝাই একটি লরি আটক করে ওই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা এবং একাংশ লরির মালিক ও ব্যবসায়ীরা। সেখানে লরি চালক এবং মালিক মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সম্পাদকের স্বাক্ষর করে দেওয়া একটি চিঠির অনুমতি দেখিয়ে সিমেন্ট সরবরাহ করার বিষয়টি জানান।  আর এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে জেলার কিছু ব্যবসায়ীরা।  তাঁদের অভিযোগ, লকডাউনের সময় সবাই নিজেদের ব্যবসা বন্ধ রেখেছে। কারো পোশাকের দোকান, কারোর গহনার দোকান সবই বন্ধ রয়েছে। কিন্তু ব্যবসায়ীদের কয়েকজন বড় মাথা দেদার ভাবে নিজেদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। লকডাউনের মধ্যে কোথাও সিমেন্ট সরবরাহ করার অনুমতি নেই। সেক্ষেত্রে মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের অনুমতি পত্র কিভাবে ব্যবহার করে কেউ কেউ ব্যবসা করছে, তা নিয়েও বিস্তর অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে গৌড় মালদা স্টেশনে সিন্ডিকেট রাজের মাধ্যমেই চলছে লরি বোঝায় সিমেন্ট সরবরাহের কাজ বলেও অভিযোগ উঠেছে। এক্ষেত্রেও জেলার ব্যবসায়ীদের কয়েকজন বড় মাথাও যুক্ত রয়েছে বলে অভিযোগ। পুরো বিষয়টি নিয়ে ক্ষিপ্ত ব্যবসায়ী থেকে জেলার তৃণমূলের একাংশ।

ইংরেজবাজার পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা তৃণমূলের টাউন সভাপতি নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি ফোনে বলেন , লকডাউনের মধ্যে আমার এলাকার  মালদা টাউন  স্টেশনের রেক পয়েন্টের লরি চলাচল করছিল। সেটা কোনোভাবেই আমরা মেনে নেই নি। রেলের মার্চেন্ট কমিটিকে বলে সেটি বন্ধ করা হয়েছে। আর এই সুযোগেই এখন সুস্থানি মোড় সংলগ্ন গৌড় মালদা স্টেশনে রেক পয়েন্ট লাগিয়েই সেখানকার মালগাড়ি থেকেই লরি বোঝাই করে সিমেন্ট শহরের বিভিন্ন এলাকায় রপ্তানি করা হচ্ছে। 

এদিকে মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডু জানিয়েছেন, সংগঠনের পক্ষ থেকে কাউকে কোন রকম অনুমতি দেওয়া হয় নি। এখন কে কোথায় কী ধরনের সামগ্রী সরবরাহ করছে তা বলতে পারব না। 

Latest tweets

Social Media


Download Android App
About Us

Kolkata Prime Time আমাদের নিউজ পোর্টাল সর্বশেষ প্রস্তাব ও ব্রেকিং নিউজ হয়.

Owner : DIBYENDU GHOSAL

স্বত্বাধিকারী : দিব্যেন্দু ঘোষাল

Contact: 9232119011

E-mail : kolkatapritime@gmail.com

Address :

Kolkata Prime Time, S.P. PALLY, REGENT PARK, KOLKATA- 700093

©️ সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

Copyright 2019 | All Right Reserved by Kolkata Prime Time Group